মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম: ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তাড়াইলে পিডিবিএফ গ্রামীণ দরিদ্র্য ও অসুবিধাগ্রস্ত জনগোষ্ঠীকে আর্থিকভাবে স্বয়ম্ভর ,উৎপাদনমুখী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ , কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য এপর্যন্ত মোট ক্রমপুঞ্জিত ১৬৫ লক্ষ টাকা   বিতরণ করতে সক্ষম হয়েছে। ঘাটাইলে পিডিবিএফ বর্তমানে ০৭ টি ইউনিয়নে অনেক সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে সংগঠিত করে স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে ঋণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এ কার্যক্রমের ফলে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর আয়বৃদ্ধিমূলক কর্মকান্ডযেমন- গাভী পালন, মৎস্য চাষ , শাক-সবজি চাষ, নার্সারী, মুরগী পালন ইত্যাদির মাধ্যমে বিভিন্ন আত্নকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে এবং তাদের পরিবারের সদস্যদেরসহ অনেক জনগোষ্ঠীর সরাসরি আর্থিক সচ্ছলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। 

 

সঞ্চয় কার্যক্রম: পিডিবিএফ তাড়াইলে কার্যালয়ের সুফলভোগীরা ঋণ কার্যক্রমের পাশাপাশি সঞ্চয় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয় ব্যাংকে জমা করা সম্ভব নয়। তাই তাড়াইলের দক্ষ কর্মী গদল গঠনের মাধ্যমে এইসব ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয় সমিতির সাপ্তাহিক সভায় সংগ্রহ করে সুফলভোগীদের পুঁজি  গঠনে সহায়তা করছে। পিডিবিএফ-এ সাধারণ সঞ্চয়, সোনালী সঞ্চয় এবং মেয়াদী সঞ্চয় নামে তিনটি ভিন্ন ভিন্ন সঞ্চয় প্রকল্প চালু আছে। কার্যালয়ের মোট সুফলভোগীদের পুঁজির পরিমান ৯৬ লক্ষ টাকা।

 

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা ঋণ কার্যক্রম(SELP):

 দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং উদ্যোক্তারা নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গঠন, ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য যে অর্থ প্রয়োজন তা সংগ্রহ করতে সামর্থ হন না। এই সব ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং উদ্যোক্তাদের সহজ প্রক্রিয়ায় ঋণ সুবিধা প্রদান সহ অন্যান্য কারিগরী সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে অধিক আয় এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে সরকারের পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশন। তাড়াইলে চলতি অর্থ বছরে প্রায় ১১২.০০ লক্ষ টাকা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা কার্যক্রমে ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। যাতে কর্মসংস্থান হয়েছে প্রায় ৯৪ টি পরিবারের। আগামী অর্থ বছরে আরো ব্যপকভাবে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাকার্যক্রমেঋণ বিতরণের পরিকল্পনা রয়েছে।

 

সৌরশক্তি কার্যক্রম:

 তাড়াইলে বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুৎ সুবিধাবঞ্চিত অনগ্রসর দারিদ্র্য প্রবণ এলাকায় বিদ্যুৎ সুবিধা পৌছানোর লক্ষ্যে পিডিবিএফ তাড়াইল কার্যালয় হতে অতি সহজ শর্তে কিস্তিতে সৌর বিদ্যুৎগ্রাহকদের মাঝে সরবরাহ করা হয়; যা গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। সৌরবিদ্যুতের উজ্জ্বল আলোর কারণে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষেরা রাতে ও দিনে কাজ করে বাড়তি আয়ের সুযোগ পান। সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার করে উৎপাদনমুখী কাজে কাজের সময়কে বর্ধিত করে পল্লীর অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব রাখছে। যেমন: পোল্ট্রি ফার্ম, মাছ চাষ,মাছ প্রক্রিয়াজাত, কাপড় বুনন, হস্তশিল্প এবং হাট-বাজারে ব্যবসা-বাণিজ্যের সময় বৃদ্ধিতে সাহায্য করছে। নিভৃত পল্লীতে জনসাধারণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সুযোগ সৃষ্টি করছে। ছাত্র-ছাত্রীরা সৌরবিদ্যুতের আলোয় অধিক সময় লেখাপড়া করতে পারছে। বিশেষ করে টেলিভিশনের মাধ্যমে সংবাদ,বিনোদন ও শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান দেখার সুযোগ পাচ্ছে। দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের ঘাটতি মোকাবেলায় অবদান রাখছে। এই কার্যক্রম পরিবেশ দুষণমুক্ত রাখে। আত্নকর্মসংস্থান , ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন উৎপাদনমুখী কার্যক্রমের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে ফলে দারিদ্র্য বিমোচনে ইতিবাচক ভূমিকা রেখে চলেছে।

 

 

প্রশিক্ষণ কার্যক্রম:

দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে ঋণ প্রদানের পাশাপাশি তাড়াইলে পিডিবিএফ এর আওতাভুক্ত  অনেক  সদস্যকে বিভিন্ন সময়ে দিবস দক্ষতাউন্নয়ন, নেতৃত্ব বিকাশও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।


Share with :

Facebook Twitter